নীরোগ মানে কি সুস্থ?

আপনার হাত পা অটুট, আপনি নীরোগ মানে আপনি সুস্থ তা কিন্তু নয় । বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বললেন আপনি শারীরিক , মানসিক, সামাজিক ভাবে সুস্থ হলে তবে আমরা একে স্বাস্থ্য বলব । কিছু কাল পর তাও বদলাল বলা হল শুধু তাই নয় , আপনার আত্মা ও যদি সুস্থ থাকে তাহলে ই স্বাস্থ্য বলা যেতে পারে। আমরা শরীরের অসুখ , মনের অসুখ , সমাজের সাথে সম্পৃক্ত থেকে যে অসুখ সে গুলোর সন্ধান করেছি আর এর চিকিৎসা কি হতে পারে তা বের করার চেষ্টা করেছি , অনেক গবেষণাও করেছি ।
বহু কাল আগে প্রথম যখন এই ড স ভাইরাস , এইড স রোগ আবিষ্কৃত হল আর এর চিকিৎসা অসম্ভব হয়ে দাঁড়াল , একজন মানুষের ধীরে ধীরে অসহায় ভাবে মৃত্যুর পথে ধাবিত হওয়ার ঘটনা ঘটতে থাকল , তখন বিজ্ঞানীরা আতঙ্কিত হলেন , হলিউডের টপ স্টার কয়েক জন এতে প্রান হারালেন । প্রান হারালেন রক হা ড সন তখন বিজ্ঞানীরা বললেন । এটি শরীরের গভীরতর অসুখ । বলা হল এটি বেশি হয় যারা বিশৃঙ্খল যৌনাচারে অভ্যস্ত, যারা বিশেষ করে
সম মৈ থুনে অভ্যস্ত । তাই বলা হলা ঃ প্রতি রোধ ই চিকিৎসা । আর সে জন্য চাই শুদ্ধ যৌনাচার । পবিত্র সম্পর্ক । নিজেকে পবিত্র রাখা , সুরক্ষিত রাখা ।
কিন্তু আত্মার যে অসুখ হতে পারে এ নিয়ে আমরা বড় কম ভেবেছি
আত্মার ও যে গভীর তর অসুখ হতে পারে তা কিন্তু পৃথিবীতে এখন ক্রমে দৃশ্য মান হচ্ছে আর এর প্রতি বিধান কি হতে পারে এ নিয়ে ব্যপক ভাবনা বিজ্ঞানীরা করেছেন মনে হয়না অথচ এই অসুখ ক্রমেই বাড়ছে দেশে দেশে । এই অসুখ যে শরীর ও মনের অসুখের চেয়েও জটিল ও গভীর তা কিন্তু ঠিক । নৈ তিক অবক্ষয় সমজের সর্ব স্তরে ছড়িয়ে পড়ছে ,উন্মাদনা , মাদক মানুষ কে আচ্ছন্ন করছে । ক্ষণিকের উন্মাদনায় হিতা হিত জ্ঞান থাকছেনা গর্হিত পাপ কাজ করছে , মানুষ , হয়ত পরে এ জন্য অনুতাপ ও করছে কিন্তু এর কবল থেকে রেহাই পাচ্ছেনা ।
লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে ধর্ষকের সংখ্যা , কিন্তু কেবল কি মাদকে আসক্ত আর বখাটে ছেলেরাই এতে যুক্ত ? এতে যোগ হচ্ছে শিক্ষক আর ভদ্র পরিবারের সন্তানেরা ও । শিশু থেকে সব বয়সের নারী , পুরুষ কেউ রেহাই পাচ্ছেনা । মুখোস পরা অনেক মানুষ যারা যথা সময়ে হয়ে উঠে হিংস্র আর ভয়ঙ্কর , তাদের মুখোস খসে পড়ে ।। এক ভয়ানক সঙ্ক ট । সমাজ পতিরা নিশ্চয় হাত পা গুটিয়ে বসে নেই , তারাও উদ্বিগ্ন । সংকট নিরসনের উপায় খুঁজছেন
ইতিমধ্যে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শিশু ধর্ষকদের শাস্তি হিসাবে মৃত্যু দণ্ডের বিধান অনুমোদন করেছেন , এটি একটি শুভ সংবাদ । এ জন্য তাঁকে অকুণ্ঠ ধন্যবাদ জানাই ।
আমরা আজ এক সন্ধি ক্ষণে দাঁড়িয়ে , আমরা আত্মার কুশল মাগলেও তা ধরা দিচ্ছেনা । দেখি আগামী দিনে আমাদের জন্য কি অপেক্ষা করছে । তবে চিকিৎসা বিজ্ঞানী , মনো বিজ্ঞানী , সমাজ বিজ্ঞানী , রাজনীতি বিদ সবাই মিলে এই অসুখ নির্মূলে কাজ করতে হবে ।

Prof Dr Subhagata Choudhury

Ex Principal Chittagong Medical College
Ex Dean Medicine, Chittagong University
Ex Director, Lab Service, BIRDEM

Add comment