french fry

ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের ইতিহাস ও স্বাস্থ্য ঝুঁকি

ফ্রেঞ্চ ফ্রাই অনেকের মন পছন্দ খাবার। আমেরিকার মোট উৎপন্ন আলুর ২৫%থেকে ফ্রেঞ্চ ফ্রাই। ম্যাকডোনাল্ডেস দিনে ১০ লক্ষ পাউন্ড ওজনের ফ্রেঞ্চ ফ্রাই বিক্রি হয়। আমেরিকার প্রতি বাসিন্দা প্রতি বছর ৩০ পাউন্ড ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খান।

ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের ইতিহাস, জন্ম বৃত্তান্ত

  • ফ্রান্সে জন্ম নয়
  • ইউরোপের অন্য দেশে বেলজিয়ামে নামুর শহর
  • সেখানকার অধিবাসীরা মাছ ভাজা খেতে খুব পছন্দ করেন। পাশের নদী থেকে মাছ এনে ভেজে খেতেন তারা। বিবিসির মতে ১৬৮০ সাল থেকে এই ফ্রাইর সাথে পরিচিতি হয় মানুষের।
  • শীত কালে জল জমে বরফ হয়,তখন মাছের বদলে বিকল্প খোঁজ চলে। তখন সহজ লভ্য আলু আাসে মেনুতে, আলু ভাজা।
  • নামুরের বাসিন্দারা আলু সরু করে কেটে তেলে ভেজে খাওয়া শুরু।
  • ফ্রাই ফিস থেকে বেশি পছন্দ তাদের আলু ফ্রাই
  • নাম কী হবে? ভেজে তৈরি তাই ফ্রাই। আলুকে সরু করে কেটে তেলে ভেজে বা ওভেনে রান্না করলে একে বলে ফ্রেঞ্চিং। এ থেকে নাম হল ফ্রেঞ্চ ফ্রাই।

ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের স্বাস্থ্য ঝুঁকি

  • মাঝারি ওর্ডার ফ্রেঞ্চ ফ্রাই এতে ৩৬৫ ক্যালরি, ১৭ গ্রাম ফ্যাট, সোডিয়াম ২৪৬ মিলিগ্রাম। কিছু সুগার আর ট্রান্স ফ্যাট।
  • এরা হাইড্রোজিনেটেড তেলে করা হয় ডিপ ফ্রাই। এতে মন্দ কোলেস্টেরল বাড়ে, ভাল কোলেস্টেরল কমে।
  • হার্ট ডিজিজের ঝুঁকি বাড়ে দারুণ
  • মাসে একদিন খেতে পারেন এত ইচ্ছা হলে
  • ফ্রাই ক্যালরিতে ঠাসা। ওজন বাড়ে খেলে
  • আছে উচ্চ মাত্রা ট্রান্স ফ্যাট। বিপজ্জনক ফ্যাট।
  • বাড়ে ক্যান্সার ঝুকি
  • হতে পারে অস্টিওপরোসিস
  • এতে থাকে কীটনাশক
  • আগাম মৃত্যুর আশংকা, নতুন গবেষণা। আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশন একে বলেছেন deadly

Prof Dr Subhagata Choudhury

Ex Principal Chittagong Medical College
Ex Dean Medicine, Chittagong University
Ex Director, Lab Service, BIRDEM

Add comment