অপর্যাপ্ত ঘুম বা নিদ্রাহীনতা: শরীরে বাসা বাঁধে নানান রোগ

“বঁধূয়া নিদ নাহি আঁখিপাতে।
আমিও একাকী, তুমিও একাকী আজি এ বাদল রাতে।।”–অতুলপ্রসাদ  সেন

আপনার কি মনে হয় গেল সপ্তাহে আপনার পর্যাপ্ত ঘুম হয়েছে? মনে করতে পারেন শেষ কবে এলার্ম ছাড়া ঘুম থেকে উঠেছেন, চা কফি ছাড়া রিফ্রেশ লেগেছে? এর কোনটির উত্তর যদি ‘না’ হয় তাহলে ভাববেন না আপনার ক্ষেত্রেই শুধু এমন হয়েছে। উন্নত বিশ্বের দুই তৃতীয়াংশ প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে দেখা গেছে রাতে আট ঘণ্টা ঘুমাতে পারেন না যা এ বয়সে রিকমেন্ডেড।

এ তথ্যে আপনি হয়তো অবাক হননি। কিন্তু কম ঘুমের ফলে কী ঘটতে পারে তা জেনে অবাক হবেন। নিয়মিত রাতে ছয় বা সাত ঘণ্টার কম ঘুমালে ইমিউন সিস্টেম দুর্বল হয়ে পড়ে, ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে দ্বিগুণের চেয়ে বেশি। আলঝেইমার্স হওয়ার পিছনেও প্রধান ভূমিকা অপর্যাপ্ত ঘুম। অপর্যাপ্ত ঘুম, নিয়মিত ঘুমের চেয়ে সামান্য কম ঘুম, মাত্র এক সপ্তাহে রক্তের সুগার লেভেলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে, স্বাভাবিক থেকে হয়ে যেতে পারেন প্রি ডায়াবেটিক। কম ঘুমের প্রভাবিত করে হার্টের সুস্থতাকে। করোনারি আর্টারি ডিজিজ (হার্ট ব্লক, হার্ট এটাক), স্ট্রোক, হার্ট ফেইলিউরের দিকে নিয়ে যেতে পারে নিদ্রাহীনতা।

ঘুমে ব্যাঘাত ঘটলে প্রভাব পড়ে মনের ওপরও। বিষণ্ণতা, দুশ্চিন্তা, আত্মহত্যার প্রবণতাসহ সব প্রধান মানসিক ব্যাধির সাথে যোগ আছে অপর্যাপ্ত ঘুমের। শার্লট ব্রন্টির ভাষায়, “a ruffled mind makes a restless pillow,”

Why We Sleep by Matthew Walker থেকে অনূদিত

Why We Sleep by Matthew Walker

 

 

Dr Omar Faruq MBBS BCS (Health)

Add comment