আপনার নিদ্রাভঙ্গী কী বলে?

আলো নিভিয়ে শুয়েছেন, চিৎ, উপুড় না পাশ ফিরে। এসব ভঙ্গী সাথে নাক ডাকা , ব্যক্তিত্ব, পিঠ ব্যাথার খুব বৈজ্ঞানিক সংযোগ না থাকলেও আছে কিছু মজার পর্যবেক্ষণ।

আপনি কি পেটের উপর শোন? উপুড় হয়ে? অস্বস্তি লাগে? হতে পারে এপাশ ওপাশ করা, ঘুরে শোয়া। কোমর ব্যথা, ঘাড় ব্যথা হতে পারে তবে এজন্য ব্যবহার করবেন খুব নরম বালিশ নয়ত একেবারেই না। তএ একটা ভাল দিক , আপনার ফুসফুস আরামে থাকবে , শ্বাস কর্ম হবে ভাল । করোনা কালে এ বড় জরুরী ।

বেলি পজিশন। অনেকে উপুড় হয়ে শোন ,বালিশের দুদিকে দুহাত ছড়িয়ে , মুখ এক পাশে । আপনি মন খুলে কথা বলেন , বেশ সামাজিক । তবে সমালোচনাতে খুব আগ্রহী নন।

চিৎ হয়ে শোয়া। হতে পারে পিঠ ব্যথা । কারো স্লিপ অ্যাপ্নিয়া, নাক ডাকা। এমন অবস্থানে শুতে হয় অন্য ভাবে শুতে পারেন না ডাক্তারের পরামর্শ নিন ।

অনেকে সটান শুয়ে পড়েন চিৎ হয়ে হাত দুটো দুপাশে টান টান । একে বলে সোলজার পজিশন । শান্ত শি শঠ । অন্তর্মুখী । নিজের আর অন্যদের কাছে অনেক প্রত্যাশা ।

চি ৎ হয়ে হাত পা ছড়িয়ে । স্টার ফিশ ভঙ্গী । হাত দুটো উপর দিকে মাথার কাছা কাছি । ভাল শ্রোতা আর অন্যের আকর্ষণ এর কেন্দ্র হতে নারাজ ।

পাশ ফিরে ঘুম । পা দুটো গুটিয়ে বুকের কাছা কাছি ।

পাশ ফিরে কুণ্ডলী পাকিয়ে । মেয়েরা এভাবে শোন বেশি । একে বলে ফি টাল পজিশন । মেজাজ এদের উষ্ণ আতিথেয়তা দিতে উন্মুখ , বন্ধু বৎসল , সংবেদন শীল তবে নিজের চারধারে এমন সুরক্ষা ব্যূহ যে সহজে কেউ তাদের অতিক্রম করতে পারেনা ।

পাশ ফিরে কাঠের গুড়ি র মত ভঙ্গী, দু হাত নিচে । সামাজিক, সহজ সরল। বিশ্বাস যোগ্য । লোকে বলে sleep like a log

পাশ ফিরে । হাত দুটো সামনের দিকে ছড়িয়ে , আকুল ব্যাকুল ভঙ্গী । yearner । খোলা মন তবে সন্দেহ প্রবন আর একবার সিদ্ধান্ত নিলে এতে লেগে থাকা ।

পাশ ফিরে। চামচের কায়দায় । শুয়ে আছেন সঙ্গীর গা ঘেঁষে । বার বার ঘুম থেকে উঠতে হতে পারে ।হয়ত নিবিড় আলিঙ্গন হত ভাল । তখন দেহে উৎসারিত হয় অক্সিটোসিন , সঙ্গীর সাথে বন্ধন হয় মজবুত । চাপ কমে । আসে ঘুম দ্রুত ।

যদি নাক ডাকেন। শব্দ কম করতে হলে পাশ ফিরে শোয়া ভাল ।
খুব জোরে নাক ডাকলে হতে পারে শ্লিপ আপ্নিয়া । পরামর্শ নেবের ডাক্তারের। আছে হৃদ রোগ , উচ্চ রক্ত চাপ আর স্ট্রোকের ঝুকি ।

পিঠ ব্যথা। পাশ ফিরে শোয়া ভাল । পা দুটোর মাঝখানে দেবেন বালিশ । আর চিৎ হয়ে শোয়ার অভ্যাস থাকলে আর এক্তা বালিশ হাঁটুর নিচে ।

গর্ভবতী হলে । নিজের আর অজাত শিশু দুজনের জন্য স্বস্তি কর পাশ ফিরে শোয়া । বা দিকে হেলে । এতে বেবি বেশি পাবে রক্ত আর পুষ্টি । পিঠ ব্যাথা হলে পেটের নিচে বালিশ । পা ভাজ করা যাবে পা দুটোর মাঝ খানে বালিশ দেয়া যাবে ।

তোশক হবে দৃঢ় অবলম্বনের জন্য তবে নরম হতে হবে দেহের আকার আকৃতির সাথে খাপ খায় যেন ।

Prof Dr Subhagata Choudhury

Ex Principal Chittagong Medical College
Ex Dean Medicine, Chittagong University
Ex Director, Lab Service, BIRDEM

Add comment